পেট কামিন্সের রেকর্ডগড়া বোলিংয়ে উড়ে গেল ইংল্যান্ড

আরও একবার অজিরা প্রমাণ করে দিলো গ্যাবা শুধুই তাদের আধিপত্যে চলে। অধিনায়ক পেট কামিন্সের রেকর্ডগড়া বোলিংয়ে এশেজের উদ্বোধনী দিনেই ইংল্যান্ডকে প্রথম ইনিংসে উড়িয়ে দিলো স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। পেট কামিন্সের ফাইফারে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ১৪৭ রানে অলআউট হয় ইংলিশরা। অ্যাশেজ সিরিজে প্রথমবারের মতো পাঁচ উইকেট নিয়ে দারুণ রেকর্ডও করলেন কামিন্স।

ঐতিহাসিক অ্যাশেজ সিরিজের প্রথম ম্যাচের প্রথম সেশনটি ছিল ঘটনাবহুল। যা শুরু হয় একদম দিনের প্রথম বল থেকে এবং চলমান থাকে পুরো প্রথম সেশনে। যেখানে আধিপত্য বিস্তার করেছে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াই। অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের আগুনে পুড়ে ছারখার হয়েছে ইংল্যান্ডের টপঅর্ডার ব্যাটিং। কিছু বুঝে ওঠার আগেই একে একে সবার পতন।

টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল ইংল্যান্ড। ইনিংসের প্রথম বলেই বাঁহাতি ওপেনার ররি বার্নসকে প্যাভিলিয়নের টিকিট ধরিয়ে দেন মিচেল স্টার্ক। ডেলিভারিটি ছিল লেগস্ট্যাম্পে অনেকটা হাফ ভলি ধরনের। কিন্তু বার্নস আগেই অফস্ট্যাম্পের দিকে সরে যাওয়ায় সেটি আর আয়ত্বে পাননি।

ফলে যা হওয়ার তাই হয়েছে, বল আঘাত হেনেছে লেগ স্ট্যাম্পে। প্রথম বলেই উইকেট হারিয়ে শুরু হয় ইংল্যান্ডের অ্যাশেজ। তবে ঠিক পরের বলেই চার মেরে পাল্টা জবাব দেওয়ার বার্তা দিয়ে রাখেন ডেভিড মালান। কিন্তু তাকে বেশিক্ষণ থাকতে দেননি জশ হ্যাজলউড।

ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ঠিক কপিবুক স্টাইলে মালানকে উইকেটের পেছনে ক্যাচে পরিণত করেন হ্যাজলউড। অভিষেকে নিজের প্রথম ক্যাচ গ্লাভসবন্দী করেন উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারে। হ্যাজলউড নিজের পরের ওভারে ইংল্যান্ডকে আরও বড় ধাক্কাটি দেন।

ফর্মের চূড়ায় থেকেই অ্যাশেজ শুরু করেছেন রুট। কিন্তু প্রথম ম্যাচে তাকে সেই ফর্মের ঝলক দেখাতে দেননি হ্যাজলউড। দারুণ সেট আপ করে রুটকে প্রথম স্লিপে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ বানান অসি পেসার। রানের খাতাই খুলতে পারেননি ইংলিশ অধিনায়ক।

মাত্র ১১ রানেই তিন উইকেট হারিয়ে তখন গভীর খাঁদে ইংল্যান্ড। তাদের বিপদ আরও বাড়ে ইনিংসের ১৩তম ওভারে বেন স্টোকসের বিদায়ে। স্টোকসকে ফিরিয়ে অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক কামিন্স শিকার করেন নিজের প্রথম উইকেট।

এরপর কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন হাসিব হামিদ। কিন্তু লাঞ্চ থেকে ফিরে যেন আরও শক্তিধর অস্ট্রেলিয়া। একাই ধ্বংসযজ্ঞ চালাতে থাকেন অধিনায়ক পেট কামিন্স।

শেষ পর্যন্ত ৫০.২ ওভারে ১৪৭ রানে অলআউট হয় ইংলিশরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন ইংলিশ উইকেটরক্ষক ব্যাটার জস বাটলার। ১৩.৫ ওভারে ৩৮ রানে ৫ উইকেট নেন অজি দলপতি কামিন্স।

About Running News

Check Also

মাশরাফির ফিটনেস নিয়ে প্রশ্ন, উড়িয়ে দিলেন ঢাকার কোচ

তিন দিন বাদেই শুরু হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) অষ্টম আসর। দীর্ঘ দিন ধরে মাশরাফি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *