এখনো বিশ্বাস হচ্ছে না মেসির

ঢাকা: দেখতে দেখতে ফুটবলের মহানায়ক দিয়েগো ম্যারাডোনার প্রয়াণের এক বছর পেরিয়ে গেল। গত বছর এই দিনে পুরো ফুটবল দুনিয়াকে স্তব্ধ করে চিরবিদায় নিয়েছেন ফুটবলের জাদুকর ম্যারাডোনা। সর্বকালের সেরা ফুটবলারদের অন্যতম তারকাকে ছাড়া এক বছর পার করল ফুটবল ভক্তরা।

২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ৬০ বছর বয়সে নিজ বাড়িতে মারা যান ম্যারাডোনা। আর্জেন্টাইন এ কিংবদন্তির মৃত্যুর আজ এক বছর পূর্ণ হলো। ‘মনে হচ্ছে যেন গতকালের ঘটনা এবং খুব অদ্ভুত অনুভূতি হচ্ছে।’

আজ ডিয়েগো ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’কে এ কথা বলেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। আর্জেন্টিনার আগের সময়কার কিংবদন্তীকে নিয়ে বর্তমান সময়ের কিংবদন্তী মেসি বললেন, ‘ফুটবল এবং আর্জেন্টাইনদের জন্য খুব দুঃখের দিন। তিনি চলে গেলেও এটা আসলে প্রস্থান নয়। কারণ ডিয়েগো চিরকালীন।’

সর্বকালের অন্যতম সেরা এ ফুটবলারের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের সময় বার্সেলোনার খেলোয়াড় ছিলেন মেসি। তারপর এই এক বছরে মেসির জীবনও পাল্টেছে। বার্সেলোনা ছেড়ে এখন তিনি পিএসজির। এর মাঝে জিতেছেন কোপা আমেরিকাও। আর্জেন্টিনার হয়ে এটি মেসির প্রথম শিরোপা।

ম্যারাডোনা বেঁচে থাকতে এমন সাফল্যের দেখা পাননি মেসি। গত জুলাইয়ে কোপা আমেরিকা জিতে ম্যারাডোনাকে স্মরণ করতে ভোলেননি আর্জেন্টাইন তারকা, ‘…অবশ্যই এটা (শিরোপা) ডিয়েগোর জন্যও, তিনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের সমর্থন দিয়েছেন।’ মেসির সঙ্গে ম্যারাডোনার সম্পর্কটা সব সময়ই মধুর ছিল। উত্তরসূরিকে সব সময়ই স্নেহের চোখে দেখতেন ম্যারাডোনা। মৃত্যুর পরও ম্যারাডোনা এখনো আগের মতোই প্রাসঙ্গিক। ফুটবল নিয়ে নানা কথা ও আলোচনায় উঠে আসে তার প্রসঙ্গ।

ম্যারাডোনার দুর্দান্ত সব গোল, ড্রিবলিং-এসবের সঙ্গে এখনো তুলনা চলে অন্যদের। বরাবরই ঠোঁটকাটা ম্যারাডোনাকেও অনেকে ভুলতে পারেননি। সংবাদমাধ্যমে তিনি প্রকাশ্যে সমালোচনা করেছেন অনেক কিছুর, অনেকের।

এমন বর্ণিল চরিত্রকে যে মেসি মিস করেন, ম্যারাডোনার প্রস্থান মেসিকে যে এখনো ভেতরে-ভেতরে কাঁদায়-তা বোঝা গেল পিএসজি তারকার কথায়। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমটিকে তিনি বলেন, ‘অবিশ্বাস্য লাগছে যে এক বছর পেরিয়ে গেছে। আর্জেন্টিনা এত বছর পর শিরোপা জিতল…কিন্তু তিনি নেই। সত্য কথা হলো এটা অদ্ভুত এক অনুভূতি যে (ম্যারাডোনার মৃত্যু) বিশ্বাস হতে চায় না।

সব সময়ই মনে হয়, টিভিতে কিংবা সংবাদমাধ্যমে তাকে দেখা যাবে। কোনো বিষয়ে হয়তো নিজের মতামত দেবেন। এতগুলো দিন পেরিয়ে গেল কিন্তু মনে হচ্ছে গতকালের ঘটনা। আমি সেরা স্মৃতিগুলোই মনে রাখব এবং তার সঙ্গে কিছু ভাগ করতে পারায় নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি।’

এদিকে ম্যারাডোনার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে নেপলস ও বুয়েন্স এইরেস কর্তৃপক্ষ। নেপলসে আজ উদ্বোধন করা হবে ম্যারাডোনার দুটি নতুন মূর্তি।

আর আর্জেন্টিনার ক্লাব ম্যাচগুলোতে আজ খেলা শুরুর আগে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হবে। পাশাপাশি ক্লাবগুলোর খেলোয়াড়েরা ম্যারাডোনার ১০ নম্বর জার্সির মতো করে মাঠে দাঁড়িয়ে তাঁকে স্মরণ করবেন। আর্জেন্টিনা ফুটবল লিগ ম্যারাডোনা স্মরণে বানিয়েছে একটি ভিডিও চিত্রও।

About Running News

Check Also

বাংলাদেশের মাটিতে পাকিস্তানের সাজিদের ইতিহাসের

ঢাকা টেস্টে পাকিস্তানের ৩০০ রানের জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ৮৭ রানেই অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *